নিজস্ব প্রতিবেদক

সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চাইতে বেশি ভাড়া আদায় করার অভিযোগে রাজধানীতে নয়টি বাসকে ২৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

শনিবার রাজধানীর মানিকমিয়া এভিনিউতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এ জরিমানা আদায় করে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। অভিযানে নেতৃত্ব দেন বিআরটিএর নির্বাহী হাকীম ফখরুল ইসলাম।

এ নির্বাহী হাকিম বলেন, সদ্য নির্ধারিত ভাড়ার বাড়তি আদায় হচ্ছে কি না তা দেখতে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে। কেউ বাড়তি ভাড়া আদায় করলে তাদেরকে আইনের আওয়াত আনা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সরকারিভাবে সিটিং সার্ভিস বা ওয়েবিল বলতে কিছু নেই। আপনি যে নামই দেন না কেন, সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বাড়তি আদায় হচ্ছে কি না, আমরা সেটা দেখব।’

এদিকে ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে বাসে চলতে কিলোমিটারপ্রতি যাত্রীদের জন্য ভাড়া নির্ধারণ ছিল এক টাকা ৭০ পয়সা। সম্প্রতি প্রতি লিটার ডিজেলের দাম ১৫ টাকা হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় অজুহাতে পরিবহন মালিকরা আন্দোলনে নামেন। আন্দোলনের ফলাফল আসে বাড়তি ভাড়া। কিলোমিটার প্রতি ৪৫ পয়সা হারে বেড়েছে বাস ভাড়া। রাজধানী ও চট্টগ্রামে বাসে চলাচল করতে যাত্রীদের কিলোমিটারপ্রতি ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে দুই টাকা ১৫ পয়সা। কিন্তু অনেক বাস এর বেশি ভাড়া আদায় করছে। এছাড়াও ওয়েবিলের নামে সর্বনিম্ন ১০ টাকার ভাড়াও রাখা হচ্ছে ১৫ টাকা।

বাড়তি ভাড়া আদায়ের এই নৈরাজ্য রোধে রাজধানীতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছে বিআরটিএ।

By sohail