কুমিল্লায় ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে হিন্দুদের মন্দির, মণ্ডপ, বাড়িঘর ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলার সমন্বিত একটি প্রয়াস কেন গোয়েন্দা সংস্থা আগে থেকে জানতে পারল না- তা উদ্‌ঘাটনের দাবি জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের।

সেইসঙ্গে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এই হামলা কেন ঠেকাতে পারল না- সেটিও উদ্‌ঘাটনের দাবি জানান জিএম কাদের।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক সম্প্রীতি সমাবেশে তিনি এসব দাবি জানান।

এ বিষয়ে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান আরও বলেন, দেশের সব ধর্মের মানুষের মধ্যে যে সম্প্রীতি আছে, তা রক্ষায় ব্যর্থ হলে সেটা সরকারের ব্যর্থতা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও গোয়েন্দা বাহিনীর ব্যর্থতা।

সমাবেশে সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিলের কথা বলায় তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের পদত্যাগ দাবি করা হয়েছে।

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে উদ্দেশ করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেন, হঠাৎ আমাদের সরকারি দলের একজন প্রতিমন্ত্রী কিছু বেফাঁস কথা বলে ফেললেন। তিনি ইসলাম ধর্ম নিয়ে ‘কটাক্ষ’ করলেন। যেটা অনেকটাই আগুনের মতো উসকে দেওয়ার অবস্থা। সবদিক বিবেচনায় নিয়ে জাতীয় পার্টি মনে করে, সরকারের তরফ থেকে আরও গভীরভাবে বিবেচনা করার সময় এসেছে যে, এই ষড়যন্ত্রকারী কারা?

এ সময় বিপদে-আপদে নিজের জীবন দিয়ে হলেও সংখ্যালঘুদের জীবনকে রক্ষা করতে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীসহ দেশের সবার প্রতি অনুরোধ জানিান জিএম কাদের।

‘সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে গড়ে তোল মুক্তধারার গণজাগরণ’ শীর্ষক সমাবেশটির আয়োজন করে জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর দক্ষিণ।এতে আরও বক্তব্য দেন- জাতীয় পার্টির মহাসচিব মজিবুল হক চুন্নু, কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা ও দলটির ঢাকা দক্ষিণের জহিরুল আলম প্রমুখ।

By sohail