নিজস্ব প্রতিবেদক

কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মীয়মাণ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের (কর্ণফুলী ট্যানেল) দ্বিতীয় মুখ উন্মুক্ত হচ্ছে আগামী শুক্রবার (৮ অক্টোবর)। এর মধ্য দিয়ে দেশের প্রথম এই টানেলটি পূর্ণাঙ্গ রূপ পাওয়ার পথে আরও একধাপ এগিয়ে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির সভা (একনেক) শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এ তথ্য জানিয়েছেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু টানেল আমাদের স্বপ্নের অন্যতম বড় মেগা প্রকল্প, রোমাঞ্চকর প্রকল্প। এটা ২০২২ সালের ডিসেম্বরে শেষ হওয়ার কথা ছিল। তবে তার আগেই শেষ হয়ে যাবে বলে প্রকল্প-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা একনেক বৈঠকে জানিয়েছেন।’

রাজধানীর আগারগাঁওয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক প্রধান শেখ হাসিনা।

সভায় কর্ণফুলী টানেল নিয়ে আলোচনা হয়েছে উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘প্রকল্পটির কাজ আগেভাগেই শেষ হবে। আগামী শুক্রবার এটির দ্বিতীয় মুখ খুলে যাবে। একটা মুখ তো আগে খুলেছিল, দ্বিতীয়টিও খুলে দেওয়া হবে। এতে আমাদের আসা-যাওয়ার পথ পুরোটাই উন্মুক্ত হবে।’

তিনি জানান, ২০২২ সালের ডিসেম্বরে এটি উদ্বোধনের কথা ছিল। এখন আশা করা হচ্ছে, এত দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে না। তার অনেক আগেই উদ্বোধন করা যাবে। তবে সুনির্দিষ্ট কিছু বলতে পারছি না, এটা কর্তৃপক্ষ ঠিক করবে।

মন্ত্রী বলেন, ‘এটা সরকারের জন্য অবশ্যই অনেক বড় আনন্দের ব্যাপার। প্রায় সময় কথা উঠেছে, কোনও প্রকল্প সময় মতো শেষ হয় না, আগায় না। এটি একটি বড় অভিযোগ। এ প্রকল্পে তেমনটি হয়নি, সময়ের আগেই শেষ হচ্ছে। মূল কাজ এখন শেষ হচ্ছে। তবে আরও অনেক কাজ বাকি আছে।’

By sohail