মাদারীপুর প্রতিনিধি

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মাদারীপুরের কালকিনিতে বাবা-ছেলেকে মারাত্মকভাবে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ। সোমবার রাত ৯টার দিকে আহতদের ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানা হয়েছে। এই ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘ দিন ধরে জেলার কালকিনি উপজেলার বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের স্নানঘাটা এলাকায় ওহাবালী বেপারীর ছেলে ফজলে বেপারী ও কালু সর্দারের ছেলে আইয়ুব আলী সর্দারের মধ্যে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এরই জেরে সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বাশঁগাড়ী ইউনিয়নের স্নানঘাটা এলাকায় আইয়ুব আলী সর্দার (৫৫) ও তার ছেলে সোহেল রানাকে (৩৫) পূর্ব পরিকল্পিতভাবে পথরোধ করে এলোপাথারিভাবে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে।

পরে তাদের উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতের মাথায়, বুঁকে ও হাতে একাধিক কোপের আঘাত রয়েছে। রাত ৯টার দিকে আহতদের অবস্থার অবনতি হলে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে রেফার করা হয়। এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এই ঘটনায় যেকোন সময় বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে কালকিনি থানার অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা আছে।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক আবু সফর জানান, ‘সন্ধ্যার পরে আহতরা হাপসাতালে এলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বেডে দেয়া হয়। পরবর্তীতে অবস্থা খারাপ হলে ঢাকায় রেফার করা হয়। মাথায়, বুকে ও হাতে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে তাদের।’

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি ইসতিয়াক আহমেদ রাসেল জানান, ওই এলাকায় জমিজমা নিয়ে দীর্ঘ দিন বিরোধ চলে আসছে। যার কারণে এই হামলার ঘটনা। ধারণ করা হচ্ছে পূর্ব থেকেই পরিকল্পনা করে হামলা করেছে।

তিনি বলেন, ‘অভিযোগ পেলে আসামি গ্রেপ্তার করা হবে। এলাকা পরিদর্শন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন রাখা আছে।’

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.