আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানাপোলিস শহরে বন্দুকধারীর গুলিতে আট ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। পুলিশের ধারণা বন্দুকধারী নিজের গুলিতেই মারা গেছেন।

চলতি বছর ইন্ডিয়ানাপোলিসে এটা তৃতীয় গুলির ঘটনা। গত ২৪ জানুয়ারি ভোরে ইন্ডিয়ানাপোলিসে দুর্বৃত্তের গুলিতে একজন অন্তঃসত্ত্বা নারী ও তার অনাগত সন্তানসহ ছয়জন নিহত হন। এ ঘটনায় এক কিশোর গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়। এছাড়া গত মার্চ মাসে শিশুসহ চারজন হত্যায় এক ব্যক্তিকে অভিযুক্ত করা হয়।

সর্বশেষ ঘটনা সম্পর্কে ইন্ডিয়াপোলিস শহর পুলিশের মুখপাত্র জেনাই কুক বলেন, পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পরও গোলাগুলি হচ্ছিল। একপর্যায়ে আটজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় খুঁজে পাওয়া যায়। তাদের সবাই ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। আহত অবস্থায় আরও কয়েকজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদেরকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশের এই মুখপাত্র আরও বলেন, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ইন্ডিয়ানাপোলিসের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে বহুজাতিক পণ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ফেডেস্কের কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। সেখান থেকে হতাহত লোকজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। বন্দুকধারী নিজের গুলিতে আত্মহত্যা করেছেন বলে মনে করছেন তিনি।

স্থানীয় সম্প্রচারমাধ্যম উইশ-টিভিকে ফেডেক্সের কর্মী জেরেমিয়াহ মিলার বলেন, ‘সাব মেশিনগানের মতো দেখতে একটি স্বয়ংক্রিয় রাইফেল হাতে এক ব্যক্তিকে আমি দেখতে পাই। সে সামনে গুলি ছুঁড়ছিল। আমি ভয় পেয়ে যাই এবং তাৎক্ষণিকভাবে নিচে ঝুঁকে পড়ি।

ফেডএক্স কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তারা বন্দুক হামলার ঘটনা সম্পর্কে শুনেছে এবং এ বিষয়ে স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করা হচ্ছে। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘নিরাপত্তাই আমাদের প্রধান অগ্রাধিকার। হামলায় হতাহত সবার বিষয়ে আমরা উদ্বিগ্ন।’

যুক্তরাষ্ট্রে দিন দিন বন্দুক হামলাসহ সহিংস ঘটনা বেড়েই চলেছে। দেশটিতে গত এক মাসে অন্তত ১০টি বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত ৪০ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে ২০ মার্চ এক দিনে তিনটি হামলা হয়েছে। এসব হামলার কোনোটা আবার এশীয়-আমেরিকানদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষের কারণে ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সিএনএন-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ১৭ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের আটলান্টা শহরে তিনটি বডি মাসাজ পার্লারে গুলিতে অন্তত ৮ জন নিহত হয়, ২২ মার্চ কলোরাডো অঙ্গরাজ্যের বাউলডার নগরীর একটি গ্রোসারি মার্কেটে বন্দুকধারীর গুলিতে পুলিশের এক কর্মকর্তাসহ অন্তত ১০ ব্যক্তি নিহত হয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.