মিশরের সুয়েজ খালে মালবাহী জাহাজ আটকে যাওয়ার ফলে প্রায় এক সপ্তাহ ভাঁটা পড়েছিল ব্যবসা বাণিজ্য। ইউরোপ ও এশিয়ার বাণিজ্যের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই জলপথ। এবার মিশর কর্তৃপক্ষের নিয়মে ফাঁসল সেই জাহাজ। ওই জাহাজটিকে বাজেয়াপ্ত করেছে মিশর সরকার। মঙ্গলবার জানানো হয়েছে জাহাজের মালিককে ৯০ কোটি ডলার দিতে হবে। তবেই জাহাজটিকে ছাড়বে তারা।

২৩ মার্চ সুয়েজ খালে আটকে যায় পণ্যবাহী জাহাজ এমভি এভার গিভেন। ৬ দিন ক্রমাগত চেষ্টার পর সেটি ফের চালু হয়। মিশর কর্তৃপক্ষ ও আন্তর্জাতিক একাধিক সংস্থার চেষ্টার ফলে এভার গ্রিনকে নড়ানো সম্ভব হয়। গোটা ঘটনায় আন্তর্জাতিক ব্যবসা তো বটেই, মিশরও ক্ষতির সম্মুখীন হয়।

সুয়েজ খাল কর্তৃপক্ষের প্রধান ওসামা রাবি জানিয়েছেন, এভার গিভেনকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। রাবি জাপানি মালিক শোয়েই কিসেন কাইশার কথা স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেননি। কিন্তু অন্য সূত্র থেকে জানা গিয়েছে যে বীমা সংস্থা এবং খাল কর্তৃপক্ষের মধ্যে ক্ষয়ক্ষতির বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছিল।

এই খাল দিয়ে গোটা বিশ্বের বাণিজ্যের প্রায় ১২ শতাংশ হয়ে থাকে। তাই সুয়েজ খাল বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর অনেকেই আফ্রিকার দক্ষিণ অঞ্চলের দিকে দীর্ঘ এবং ব্যয়বহুল জলপথ বাণিজ্যের জন্য বেছে নেয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.