করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা রোধে সরকারঘোষিত লকডাউনের আগে আজ দেশের ব্যাংকগুলোতে শেষ লেনদেন হবে। মঙ্গলবার বেলা তিনটা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা থাকবে।

করোনার দ্বিতীয় দফা ঢেউ নিয়ন্ত্রণে আনতে বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউন। এই সময় দেশের সব তফসিলি ব্যাংকের কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে সার্বক্ষণিক খোলা থাকবে এটিএম বুথ ও ইন্টারনেট ব্যাংকিংসহ অনলাইন সেবা। ব্যাংকগুলোকে পর্যাপ্ত নোট সরবরাহ নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

কঠোর লকডাউনের কারণে টানা সাতদিন ব্যাংক বন্ধের আগে ভিড় সামলাতে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বুধবার থেকে ব্যাংক বন্ধের সিদ্ধান্তের ফলে মঙ্গলবার ব্যাংকে ভিড় হতে পারে। এ কারণে এদিন সকাল ১০টা থে‌কে বিকাল ৩টা পর্যন্ত ব্যাংক লেনদেন চলবে। আর লেনদেন পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত।

তিনি আরও বলেন, সর্বাত্মক লাকডাউনে তফসিলি সব ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও প্রয়োজন পড়লে স্থল, বিমান ও সুমদ্রবন্দর এলাকায় আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের শাখা বা উপশাখা কর্তৃপক্ষ চাইলে খুলতে পারে। সেক্ষেত্রে এডি শাখা এবং সংশ্লিষ্ট বিভাগ সংশ্লিষ্ট ব্যাংক খুলতে পারবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানিয়েছে, লকডাউনের সাতদিন ব্যাংক বন্ধ থাকার কারণে এটিএম বুথ থেকে দিনে এক লাখ টাকা পর্যন্ত নগদ উত্তোলন করা যাবে। এর আগে বেশিরভাগ ব্যাংকে কার্ড দিয়ে দিনে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত উত্তোলন করা যেত।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.