নওগাঁ প্রতিনিধি :  বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে আগামী ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমন যে বিক্ষোভ করছে তাঁর পেছনে বিএনপির ইন্ধন রয়েছে। সেই গুমরটিই বিএনপির মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ফাঁস করে দিয়েছেন। মোদি কেন বাংলাদেশে আসবেন এমন প্রশ্ন তোলে মীর্জা ফখরুল প্রমাণ করেছেন তারা ভারত বিরোধী, তারা বাংলাদেশের উন্নয়ন চায় না।

আজ বুধবার (২৪ মার্চ) দুপুরে নওগাঁর সাপাহার উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ভারত আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ হিসেবে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধ থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের উন্নয়নে তাদের যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে। কিন্তু বিএনপি বাংলাদেশের ভালো চায় না, উন্নয়ন চায় না বলেই ভারতবিরোধী ভূমিকা রেখে চলেছেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রীর আগমন নিয়ে প্রশ্ন তোলার মধ্য দিয়ে বিএনপি প্রমাণ করেছে তারা ভারত বিরোধী বৈরতা ভুলতে পারেনি।

তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে প্রতিবেশি সাথের সুসম্পক রাখতে হবে। যে দেশ আমাদেও তিন দিকের সাথে বিস্তৃত সে দেশের সাথে সুসম্পক না রেখে আমাদের দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি সম্ভব নয়। তাই বিএনপিকে আহবান জানানো এসব প্রশ্ন না তুলে সঠিত রাজনীতিতে ফিরে আসুন এবং ভারত বিরোধী যে রাজনীতি দীঘ দিন ধরে অনুসরন করে আসছেন সেটি বাংলাদেশের উন্নয়নের জন্য সহায়ক নয়।

এসময় খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ‘আওয়ামী লীগ যেহেতু ক্ষমতায় রয়েছে সেজন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিনয়ী হতে হবে। এমনভাবে জনগণের সঙ্গে মিশতে হবে যাতে তারা মনে কষ্ট না পান। আচার-আচারণে বিনয়ী হতে হবে। মানুষের সুখ-দুঃখে সব সময় পাশে থাকতে হবে।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন সাপাহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুল আলম শাহ্ চৌধুরী। এসময় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস, এম কামাল হোসেন, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ রোকেয়া সুলতানা,  সংসদ সদস্য আলহাজ¦ শহীদুজ্জামান সরকার, ছলিম উদ্দীন তরফদার, আলহাজ¦ আনোয়ার হোসেন হেলাল ও ব্যারিষ্টার নিজাম উদ্দীন জলিল জনসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দরা বক্তব্য রাখেন।

By sohail

Leave a Reply

Your email address will not be published.