জয়ের ধারা থামছেই না জার্মান জায়ান্ট ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখের। জিতেই চলেছে একের পর এক ম্যাচ। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে লাজিওকে ৪-১ গোল ব্যবধানে হারানোর পর বুধবার রাতে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচেও জয় পেয়েছে বায়ার্ন। এদিন ঘরের মাঠে লাজিওকে হারিয়েছে ২-১ গোল ব্যবধানে। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৬-২ ব্যবধানে নিয়ে সেরা আটে উঠেছে জার্মান ক্লাবটি।

দ্বিতীয় লেগের ম্যাচের তিন গোল ব্যবধানে হারলেও কোনো সসম্যা ছিল ছিল না বায়ার্ন মিউনিখের। তাই এদিন অনেকটা গা ছাড়া ভাব নিয়েই খেলতে থাকে ক্লাবটির ফুটবলাররা। এরপরেও বল দখলে এগিয়ে ছিল স্বাগতিকরাই।

ম্যাচের বায়ার্ন দ্বাদশ মিনিটে প্রথম ভালো সুযোগ পায় বায়ার্ন। কিন্তু সেসময় গোল আর করা হয়নি। ডি-বক্সে একজনকে কাটিয়ে লেরয় সানের নেওয়া নিচু শট পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে যায়। এর দুই মিনিট পর সুযোগ পায় লাজিও। লুইস আলবার্তোর ক্রসে ডি-বক্সে ঠিকমতো হেড করতে পারেননি সের্গেই মিলিনকোভিচ-সাভিচ।

এরপর ৩৩তম মিনিটে লেভানডোস্কির সফল স্পট কিকে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। ডি-বক্সে লেয়ন গোরেটস্কা ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। ৬৭তম মিনিটে ভাগ্যের ফেরে নিজের দ্বিতীয় গোল পাননি লেভানডোস্কি। ডি-বক্সের বাইরে থেকে তার জোরালো শট ফেরে পোস্টে লেগে। ৭২তম মিনিটে কাছ থেকে হোয়াকিন কোররেয়ার প্রচেষ্টা ফিরিয়ে বায়ার্নের ত্রাতা গোলরক্ষক আলেক্সান্দার নুবেল।

ম্যাচের ৮২তম মিনিটে ব্যবধান কমান দ্বিতীয়ার্ধে বদলি নামা পারোলো। ফ্রি কিকে কাছ থেকে হেডে বল জালে পাঠান এই ইতালিয়ান মিডফিল্ডার। এরপর আর কোনো গোল হয়নি। ফলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে স্বাগতিক বায়ার্ন।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.