ঘরের ভেতর থেকে মা ও মেয়ের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোরে হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার দ্বিগম্বরবাজার থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন একজন।

নিহতরা হলেন, উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের লামাপুটিজুরী গ্রামের সন্দ্বীপ দাসের স্ত্রী অঞ্জলী (৩৫) ও তার মেয়ে পূজা (৮)। এ ঘটনায় আহত আমির আলীকে বাহুবল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লামাপুটিজুরী গ্রামের সন্দ্বীপ দাস কাঁচামালের ব্যবসা করেন। তিনি স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে দ্বিগম্বরবাজারে তিন তলা একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন।

বুধবার রাতে ব্যবসার কাজে সুনামগঞ্জে অবস্থান করছিলেন সন্দ্বীপ দাস। বৃহস্পতিবার ভোরে তিনি বাসায় এসে দেখেন তার স্ত্রী ও মেয়েকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

সন্দ্বীপ দাস বলেন, রাত ৩টার দিকে দ্বিতীয় তলার ভাড়াটিয়া বাহুবল এলাকার আহত আমির আমাকে ফোন দিয়ে বলেন, তার ঘর চুরি হয়েছে। ঘরে থাকা সেলাইমেশিনসহ সব চুরি করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এ ঘটনার সঙ্গে আমির আলীর সম্পৃক্ততা থাকতে পারে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন জেলার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার পারভেজ আলম চৌধুরী।

তিনি জানান, ঘটনাস্থলে পৌঁছে আলামত সংগ্রহ করছে পুলিশ। তবে কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.