ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপকারী রণতরী বানাচ্ছে ইরান। শিগগিরই এর উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছে দেশটির ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি)। রণতরীটির নাম দেয়া হয়েছে লে. জেনারেল শহীদ কাসেম সোলাইমানি।

আইআরজিসির নৌশাখার কমান্ডার বলেছেন, ফার্সি ১৪০০ সালে তার বাহিনী ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপে সক্ষম একটি রণতরী উদ্বোধন করবে। আগামী শনিবার (২০ মার্চ) ফার্সি ১৩৯৯ সালের সমাপ্তি হবে এবং রবিবার থেকে ১৪০০ সাল শুরু হবে। খবর পার্সটুডের

আইআরজিসির নৌশাখার কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল আলীরেজা তাংসিরি টেলিভিশন বলেন, তার বাহিনী ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এই রণতরী নির্মাণ করছে।

অ্যাডমিরাল তাংসিরি বলেন, রণতরীটি ৪৫ নটিক্যাল মাইল বেগে চলতে সক্ষম জানিয়ে তিনি বলেন, এই রণতরী থেকে ‘ভূমি থেকে ভূমিতে’, ‘ভূমি থেকে আকাশে’ এবং ‘আকাশ থেকে ভূমিতে’ নিক্ষেপযোগ্য নানা ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা যাবে। এর ফলে ইরানের নৌবাহিনীর রণ-সক্ষমতা বহুগুণে বেড়ে যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

তাংসিরি বলেন, ফার্সি ১৪০০ সালে এ ধরনের জটিল তিনটি জাহাজ আইআরজিসির নৌবাহিনীতে যুক্ত হবে। এগুলোর একটির নাম দেয়া হবে ‘আবু মাহদি আল-মুহান্দিস’।

২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ড্রোন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়ে ইরানের কুদস ফোর্সের তৎকালীন কমান্ডার লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করে যু্ক্তরাষ্ট্র।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.