হ্যারি, মেগান এবং অর্চি সবসময় পরিবারের অনেক বেশি ভালোবাসার সদস্য বলে জানিয়েছেন ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। সম্প্রতি প্রিন্স হ্যারি ও মেগান অপেরা উইনফ্রেহকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ব্রিটিশ রাজপরিবারের অন্দরের গুরুতর অভিযোগ আনেন। তারপরই রানির পক্ষে মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এমন কথা জানিয়েছে বাকিংহাম প্যালেস।

ওই সাক্ষাৎকারে মেগান জানান, রাজপ্রাসাদে অন্যদের অবহেলার মুখে আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন তিনি। এছাড়া তিনি যখন গর্ভবতী ছিলেন তখন তার সন্তানের গায়ের রং কী হবে তা নিয়েও দিনরাত আলোচনা চলতো। এমনকি জানিয়ে দেয়া হয়েছিল যে, তাদের সন্তানকে রাজপুত্রের মর্যাদা দেয়া হবে না।

রানির বিবৃতিতে বাকিংহাম প্যালেস জানিয়েছেন, হ্যারি ও মেগানের জন্য গত কয়েক বছর কতটা চ্যালেঞ্জপূর্ণ ছিল তা জানতে পেরে পুরো পরিবার অনেক দুঃখ পেয়েছে।

রানি বিবৃতিতে বলেন, উত্থাপিত বিষয়গুলো বিশেষত জাতিগত বিষয়গুলো উদ্বেগের। এগুলো গুরুত্ব সহকারে নেয়া হবে এবং পারিবারিকভাবে সমাধান করা হবে।

হ্যারি-মেগানের দুই বছর বয়সী অর্চিকে রানির প্রপৌত্র হিসেবে উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হ্যারি, মেগান এবং অর্চি সবসময় পরিবারের খুব প্রিয় সদস্য।

ওই সাক্ষাৎকারে হ্যারি বলেন, রাজপরিবার ছাড়ার কথা জানানোর পর বাবা প্রিন্স চার্লস তার সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দেন।

দাদি রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ সম্পর্কে হ্যারি বলেন, আমি দাদির সঙ্গে সর্বশেষ গত বছর কথা বলেছি। দাদির সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক আছে। তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা। তিনি সবসময়ই আমার কমান্ডার ইন চিফ থাকবেন।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.